৭ কারণে হতে পারে স্তনে ব্যাথা৷ জেনে নিন স্তনে ব্যাথা হবার কারণ

0
240

স্তনে হঠাৎ যন্ত্রণা হওয়া মানেই যে সেটিকে মারণরোগ ক্যান্সারের উপসর্গ বলে ধরে নিতে হবে, তা কিন্তু নয়। স্তনে একাধিক কারণে ব্যথা হতে পারে। বেড়ে যেতে পারে স্তনের আকার। তাই আগে থেকে আর্তনাদ না করে, জেনে নিন ঠিক কী কী কারণে স্তনে ব্যথা হতে পারে।
১. মাসের বিশেষ দিনগুলোয় হতে পারে স্তনে ব্যথা: পিরিয়ডসের সময় নারীদের শরীরে হরমোনের হেরফের হয়। ফলে স্তনে টনটনে যন্ত্রণা হতে পারে। অনেক মহিলাই এই সমস্যার শিকার। খেয়াল করে দেখবেন, পিরিয়ডস্ শেষ হয়ে গেলেই স্তনের যন্ত্রণা সেরে যায়।

২. ব্রায়ের সমস্যা: অন্তর্বাস বা ব্রা যদি অতিরিক্ত টাইট বা লুজ় হয়, বা প্যাডেড ব্রায়ের ক্ষেত্রে কাপ সাইজ় সঠিক না হয়, স্তনে যন্ত্রণা শুরু হতে পারে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে হলে শিগগির সেই ব্রা বাতিল করে দিন। সঠিক সাইজ়ের ও সঠিক কাপ সাইজ়ের ব্রা বেছে নিন।

৩.অতিরিক্ত এক্সারসাইজ় : মনে রাখা দরকার, নারী ও পুরুষের শারীরিক গঠন ঠিক না। পুরুষদের শরীর শক্ত, নারীদের নরম। তাই পুরুষরা যেভাবে এক্সারসাইজ় করতে অভ্যস্থ, সেই একই প্রক্রিয়ায় কখনওই এক্সারাসাইজ় করতে যাবেন না। সমস্যায় পড়ে যাবেন। ওয়েট লিফ্ট বা পুশআপের মতো এক্সারসাইজ় চাপ সৃষ্টি করতে পারে স্তনে। সেই কারণেও ব্যথা হতে পারে।

৪.ভারী ব্যাগ, ভারী জিনিসপত্র টানা : ভারী জিনিস টানার কারণে ঘাড়, কোমরের মতো স্তনেও ব্যথা হতে পারে। অনেকেই আছেন বাজার থেকে ভারী ব্যাগ বয়ে আনেন ঘরে। বা কলেজ ও অফিসের ব্যাগটাই হয়তো ভীষণ ভারী। এতে আমাদের পেক্টোরাল মাসলে খুব চাপ পড়ে। স্তনে ব্যথা শুরু হয় সেই থেকে।

৫.এক্সারসাইজ়ের সময় সঠিক ব্রা না পরা : এখনও পর্যন্ত অনেকেই জানেন না স্পোর্টস ব্রায়ের মাহাত্ম। এক্সারসাইজ়ের সময় সাধারণ ব্রা পরা একেবারেই উচিত নয়। ফলে এক্সারসাইজ় করে স্তনে যন্ত্রণা শুরু হওয়াও অস্বাভাবিক নয়।

৬.অতিরিক্ত পিণ্ডের উপস্থিতি : ছোটো আকারের স্তনের এই সমস্যা নেই। কিন্তু যাঁদের স্তনের আকার একটু বেশি বড়, তাঁদের স্তনে যন্ত্রণা হওয়া আমবাত। অতিরিক্ত মাংসপিণ্ড স্তনকে অনেকবেশি নরম করে তোলে। ফলে স্তনে সিস্ট হওয়ার প্রবণতা তৈরি হয়। হরমোনে হেরফের হলে ব্যথা শুরু হয়।

৭.গর্ভধারণ:- প্রেগন্যান্সির গোড়াতে প্রজেস্টেরন হরমোন দ্বিগুণ মাত্রায় নিঃসরিত হতে থাকে। ফলে, স্তনে যন্ত্রণা হতে পারে খুব। যার ফলে বমি বমিভাবও তৈরি হতে পারে।

এই ৭টি কারণে হতে পারে স্তনে ব্যথা। আগে থেকে চূড়ান্ত খারাপটাও ভেবে নেওয়া ঠিক নয়। কোনও কারণে যদি স্তনে যন্ত্রণা শুরু হয়, আগে জানতে হবে ঠিক কোন কারণে যন্ত্রণা হচ্ছে। সেইমতো চিকিত্সা প্রয়োজন। তবে ছোটো থেকে ছোটো সমস্যাকে অবহেলা করা অনুচিত। মনে রাখবেন, সময় মতো চিকিত্সা করলে ভালো থাকবেন আপনি, ভালো থাকবে আপনার প্রিয়জনরাও।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here